জাপানি দূতকে তলব করেছে চীন

আলো বিদেশ ডেস্ক: জাপানি দূতকে তলব করেছে চীন
‘জরুরি বৈঠকের’ জন্য জাপানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গত বুধবার জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনঝো আবে বলেন, চীন যদি তাইওয়ানে আক্রমণ করে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র কিংবা জাপান দাঁড়িয়ে থাকবে না।

এরপরই জাপানি রাষ্ট্রদূতকে তলব করে বেইজিং। শিনঝো আবের ওই মন্তব্যকে ‘ভ্রান্ত’ এবং চীন ও জাপানের সম্পর্কের মৌলিক নীতির বিরোধী আখ্যা দিয়েছেন চীনের সহকারি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হুয়া চুনিং। বেইজিংয়ে নিযুক্ত জাপানি দূত হিদেও তারুমির সঙ্গে বৈঠকে এই মন্তব্য করেন তিনি।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আবের মন্তব্য প্রকাশ্যে চীনের সার্বভৌমত্বকে চ্যালেঞ্জ করেছে এবং তাইওয়ানের স্বাধীনতাকামী শক্তিকে নির্লজ্জ সমর্থন যুগিয়েছে।’

গতকাল বৃহস্পতিবার টোকিওতে এক সংবাদ সম্মেলনে ওই তলবের বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে জাপানের মন্ত্রিসভার মুখ্যসচিব হিরোকাজু মাতসুনো বলেন, চীনের পদক্ষেপের বিরোধিতা করছে জাপান। কারণ সরকারে না থাকা ব্যক্তির কোনও মন্তব্যের জন্য জাপান সরকার দায়ী নয়।

মাতসুনো বলেন, ‘রাষ্ট্রদূত তারুমি বলেছেন… চীনের বোঝা দরকার যে জাপানে অনেক মানুষ আছে যারা এই ধরণের মত পোষণ করে আর জাপান এই বিষয়ে চীনের একপাক্ষিক মতামত মেনে নিতে পারে না।’

গত বছর প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে যান শিনঝো আবে। ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির বড় অংশের প্রধান তিনি। দলের মধ্যে তার প্রভাবও বেশ জোরালো।